অন্তঃসত্ত্বা মাকে হত্যার পর এবার মেয়ের ওপর হামলা

বৃহস্পতিবার, ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ | ৯:০০ পূর্বাহ্ণ | 276 বার

অন্তঃসত্ত্বা মাকে হত্যার পর এবার মেয়ের ওপর হামলা

বরগুনার বামনা উপজেলার বড়যাবপুড়া গ্রামের মো. মাওলা মোল্লার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী মোসা. আসমা আক্তার ডালিমকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার পর তার মাদরাসা পড়ুয়া মেয়ে মোসা. মাহমুদা আক্তার ডেইজী (১৫) কে পিটিয়ে ও কামড়ে গুরুতর আহত করে মায়ের হত্যা মামলায় জামিনে মুক্তি পাওয়া আসামিরা।

গুরুতর আহত ওই মাদরাসা ছাত্রী বর্তমানে বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। গতকাল বুধবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুর ১১টায় নিজ বাড়ির সামনে রাস্তায় ঘুরতে বেড় হলে তার ওপর আকস্মিক হামলা করে ওই জামিনে মুক্তি পাওয়া আসামিরা। এরা হলেন- মো. নূরুল ইসলাম (৬০), লাকী বেগম (৩৫), ফাতেমা বেগম (২৮) ও পিয়ারা বেগম (৫৪)। আহত ওই মাদরাসা ছাত্রীকে প্রথমে বামনা থানায় নিয়ে আসলে থানাপুলিশ চিকিৎসা গ্রহনের জন্য হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। এ ঘটনায় আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

আহত ওই মাদরাসা ছাত্রীর বড় ভাই মেহেদী হাসান জানায়, তার মাকে পিটিয়ে হত্যার পর প্রতিপক্ষের ১০ জনকে আসামি করে বামনা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলা করা পর পুলিশ তাৎক্ষণিক ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করে। মূল আসামি মো. নিজাম আকনসহ বাকি আসামিরা গাঢাকা দেয়। এরা বিভিন্ন সময় তাদের পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি-ধামকি দেয়। কিছুদিন পরে গ্রেপ্তার হওয়া ওই আসামিরা জামিনে মুক্তি পেয়ে প্রধান আসামির সহায়তায় তাদের পরিবারকে স্বমুলে হত্যা করার হুমকি প্রদান করে। এই ঘটনার জেরে তার বোনের ওপর বুধবার দুপুরে ওই আসামিরা হামলা চালিয়েছে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর সকালে উপজেলার বড়যাবপুড়া গ্রামের যাদবপুড়া বাজারের সড়কের পাশে প্রকাশ্য দিবালোকে জমিজমা সংক্রান্ত জেরে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ আসমা আক্তার ডেইজীকে পিটিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় নিহত ডালিমের স্বামী গোলাম মাওলা মোল্লা বাদী হয়ে বামনা থানায় ১০ জনকে নামে ও ৫-৬ জন অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করে। পুলিশ ঘটনার দিনই ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করে। প্রধান আসামি মো. নিজাম আকনসহ আরো একজন এখনো পলাতক রয়েছে।

Development by: visionbd24.com