জাতীয় পার্টি সরকারে নাকি বিরোধী দলে, সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার

বুধবার, ০২ জানুয়ারি ২০১৯ | ৭:২৭ অপরাহ্ণ | 571 বার

জাতীয় পার্টি সরকারে নাকি বিরোধী দলে, সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার

একাদশ জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির অবস্থানের বিষয়ে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৩ জানুয়ারি) সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন দলের কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের। বুধবার(০২ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে দলের চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে ৩ ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন দলটির নেতারা। শপথ গ্রহণের পর মহাজোটের সঙ্গে আলোচনা করেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানান তারা।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোট ২২টি আসনে জয় পান জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা। এর মধ্যে ২১টি আসনেই মহাজোটের হয়ে আর একটি আসনে উন্মুক্ত লড়াই করে জয় পায় দলটি। মহাজোটের অংশীদার হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে জাতীয় পার্টি এবার ২২টি আসন পেয়ে, দ্বিতীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে দলটি বিরোধী দলেই থাকছে, নাকি সরকারে থাকবে। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বুধবার সকাল ১১টায় দলের প্রেসিডিয়াম ও নব নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা বৈঠকে বসেন।

প্রায় তিন ঘণ্টার বৈঠক শেষে প্রেসব্রিফিং এ দলের মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা জানান, বৃহস্পতিবার শপথ গ্রহণ শেষে দলের পার্লামেন্টারি পার্টির সঙ্গে আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তিনি বলেন, ‘শপথ গ্রহণের পর পার্লামেন্টারি যে পার্টি থাকবে তারা আগামীকালই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে যে, আগামী দিনে আমাদের রাজনীতিটা কোনদিকে প্রবাহিত হবে। যেহেতু আমরা মহাজোটের সঙ্গে একই সাথে নির্বাচন করেছি, তাই তাদের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিতে চাই।’

এদিকে, প্রেস ব্রিফিং দলের কো চেয়ারম্যান জিএম কাদের জানান, মহাজোটের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেবে তার দল। তিনি বলেন, ‘প্রায় সবাই মহাজোট থেকেই নির্বাচিত হয়েছেন। আমাদের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ এবং ১৪ দলের নেতাকর্মীরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করেছেন। আমরা এখনো সেই অবস্থানে আছি। শপথের পরে আলাপ আলোচনা করে আমরা একটা সিদ্ধান্তে আসবো।’ একাদশ জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির ভূমিকা কী হবে, বৃহস্পতিবারের শপথ গ্রহণের পরই সে প্রশ্নের উত্তর মিলবে বলেও জানান দলের নেতারা।

Development by: visionbd24.com