দখলদার ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি নিহত

মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০১৯ | ২:৪৯ অপরাহ্ণ | 622 বার

দখলদার ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি নিহত

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরো বেশ কয়েকজন। সোমবার দফায় দফায় ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। আন্দোলনকারীদের কঠোর হাতে দমনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু। এদিকে ইসরায়েলের নির্বাচনকে সামনে রেখে গাজা সীমান্তে সামরিক অভিযান পরিচালনা না করতে নেতানিয়াহুকে সতর্ক করেছেন হামাসের প্রধান ইসমাইল হানিয়া।

নিরীহ দুই ফিলিস্তিনিকে হত্যার প্রতিবাদে সোমবার অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি সেনাদের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষে জড়ায় ফিলিস্তিনিরা। আন্দোলনকারীদের দমাতে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে ইসরায়েলি সেনারা। এতে বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনি আহত হন। ইসরায়েলের দাবি, সোমবার অধিকৃত পশ্চিম তীরে রামাল্লার কাছে কয়েকজন ফিলিস্তিনি ইসরায়েলি সেনাদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় আত্মরক্ষার জন্য তাদের ওপর গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত হয়। গুরুতর আহত হয় আরো এক ফিলিস্তিনি। ফিলিস্তিনিদের হামলায় এক ইসরায়েলি সেনা গুরুতর আহত হয় বলে দাবি করে তেল আবিব।

ইসরায়েলি সেনাদের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়ার চেষ্টাকে সন্ত্রাসী হামলা উল্লেখ করে হামলাকারীদের কঠোর হাতে দমনের হুঁশিয়ারি দেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু। একইসঙ্গে হামলাকারীদের বাড়িঘর গুঁড়িয়ে দেয়ার নির্দেশ দেন তিনি। ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, আজ (৪ মার্চ) সকালে ফিলিস্তিনিরা আমাদের প্রতিরক্ষা বাহিনীর ওপর হামলার চেষ্টা করলে তারা সঙ্গে সঙ্গে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়। সন্ত্রাসীদের বাড়িঘর গুঁড়িয়ে দেয়ার অভিযান আরও বেগবান করার নির্দেশ দিয়েছি আমি। যে কোনো স্থানে সন্ত্রাসবাদ ও খুনিদের প্রতিহত করতে আমরা বদ্ধপরিকর।

একই দিন গাজা সীমান্তের কাছে ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠন হামাসের অবস্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েল। তাদের দাবি, ইসরায়েলি ভূখণ্ডে বিস্ফোরকবাহী বেলুন হামলা চেষ্টার জবাব হিসেবে ঐ হামলা চালানো হয়। এদিকে ইসরায়েলের সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক ফায়দা লোটার জন্য গাজা ভূখণ্ডে সামরিক অভিযান পরিচালনা করা হলে দেশটিকে চরম মূল্য দিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন হামাসের প্রধান ইসমাইল হানিয়া।

হামাস প্রধান বলেন, আমরা ইসরায়েলকে পরোয়া করি না। তাদের প্রতিহত করতে আমরা সব সময় প্রস্তুত। ইসরায়েলের নির্বাচনে কে জয়ী হল তাও আমাদের দেখার বিষয় নয়। তবে নির্বাচন সামনে রেখে গাজায় সামরিক অভিযান পরিচালনা করা হলে আমরাও তার যথাযথ জবাব দিতে প্রস্তুত। ইসরায়েল-গাজা সংকট নিরসনের লক্ষ্যে অস্ত্র-বিরতির জন্য নতুন করে মিশরের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানান ইসমাইল হানিয়া।

এদিকে জেরুজালেমে নিজেদের কনস্যুলেট বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কর্তৃপক্ষ জানায়, এখন থেকে ফিলিস্তিনের কূটনৈতিক মিশনসহ সমস্ত কার্যক্রম ইসরায়েলের মার্কিন দূতাবাস থেকে পরিচালনা করা হবে। তবে এর মধ্যে দিয়ে জেরুজালেম, পশ্চিম তীর অথবা গাজা ভূখণ্ড নিয়ে মার্কিন নীতির কোন পরিবর্তন হবে না বলে জানায় মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর।

Development by: visionbd24.com