ফেলানী হত্যার আট বছর

সোমবার, ০৭ জানুয়ারি ২০১৯ | ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ | 676 বার

ফেলানী হত্যার আট বছর

কুড়িগ্রাম সীমান্তে আট বছর আগে বাংলাদেশে ফেরত আসার সময় ভারতী সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে নিহত হয় কিশোরী ফেলানী। ২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার অনন্তপুর সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে। আজ সে ঘটনার আট বছর হলো। তবে সে ঘটনার বিচার এখনো শেষ হয়নি।

জানা যায়, ভারতের ১৮১ ব্যাটালিয়নের চৌধুরীহাট ক্যাম্পের বিএসএফ জওয়ান অমিয় ঘোষের গুলিতে নিহত হয় ফেলানী। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা প্রায় ঘটলেও তা খুব একটা আলোচনায় আসেনি আগে। তবে কাঁটাতারে ফেলানীর লাশ ঝুলে থাকার দৃশ্য দেশ-বিদেশের গণমাধ্যমে উঠে এলে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট ভারতের কোচবিহারের বিএসএফের বিশেষ আদালতে ফেলানী হত্যার বিচারকাজ শুরু হয়। তবে ওই বছরের ৬ সেপ্টেম্বর অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্য অমিয় ঘোষকে বেকসুর খালাস দেয় আদালত। এরপর ২০১৫ সালে ভারতের উচ্চ আদালতে রিট করেন বাবা নুরুল ইসলাম।

Development by: visionbd24.com