যুবরাজ সালমানকে নিয়ে সীমা লঙ্ঘন হচ্ছে

বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮ | ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ | 836 বার

যুবরাজ সালমানকে নিয়ে সীমা লঙ্ঘন হচ্ছে
পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেল আল-জুবেইর

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় সৌদি আরবের যুবরাজ (্ক্রাউন প্রিন্স) মোহাম্মদ বিন সালমানকে (এমবিএস) দায়ী করে বক্তব্য দেয়ার ক্ষেত্রে সীমা লঙ্ঘন হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেল আল-জুবেইর। তিনি বলেছেন, খাশোগিকে হত্যা একটি ‘দুভার্গ্যজনক ঘটনা’। এ ঘটনায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে দায়ী করা, কিংবা ভবিষ্যতে তিনি বাদশাহ হতে পারবেন নাÑ এ ধরনের আলোচনা খুবই জঘন্য। বুধবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সংবাদসূত্র : বিবিসি, রয়টাসর্, আল-জাজিরা

জুবেইর তিনি বলেন, ‘আমরা এমন কোনো বক্তব্য সহ্য করবো না, যা আমাদের বাদশাহ কিংবা যুবরাজকে ছোট করে।’ আরেকটি টেলিভিশনে তিনি মাকির্ন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র প্রতিবেদন সত্তে¡ও যুবরাজ সালমানের পক্ষাবলম্বন করেন। সিআইএ’র ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘খাশোগি হত্যার আদেশ যে যুবরাজ সালমান দিয়েছেন, এর প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।’ এরপর যুক্তরাষ্ট্রের ‘সিএনবিসি’ টেলিভিশনকে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এটি স্পষ্ট করে বলেছি, খাশোগি হত্যায় সৌদি সরকার জড়িত নয় এবং যুবরাজ কোনোভাবেই এর সঙ্গে জড়িত নন।’

চলতি সপ্তাহে ‘রয়টাসর্’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি একটি সূত্র জানিয়েছে, বাদশাহ সালমান বিন আবদুলআজিজ (৮২) মারা যাওয়ার পর তার ছেলে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বাদশাহ হওয়ার পথ রুদ্ধ হয়ে যাচ্ছে। এ সম্পকের্ জিজ্ঞাসা করা হলে আবদেল আল-জুবেইর বলেন, ‘এসব জঘন্য মন্তব্য করা হচ্ছে, যেটা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য। সৌদি আরব তাদের নেতৃত্বের ব্যাপারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।’ তিনি ‘সিএসবি’কে বলেন, ‘সৌদি বাদশাহ ও সব নাগরিকের আস্থা রয়েছে যুবরাজ সালমানের ওপর। সৌদি আরবে সংস্কার ও ভিশন ২০৩০-এর রূপকার হলেন যুবরাজ এবং তিনি এর পেছনের চালিকাশক্তি।’

সৌদির পাশে থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের

এদিকে, সাংবাদিক খাশোগির খুনের বিষয়ে আন্তজাির্তক মহলের নিন্দা সত্তে¡ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের সঙ্গে মিত্রতার পক্ষে জোরালো অবস্থান নিয়েছেন। গত মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে রেকডর্ পরিমাণ অথর্ বিনিয়োগে প্রতিশ্রæত সৌদি আরব আমাদের একনিষ্ঠ মিত্র।’

খাশোগির খুনের বিষয়ে সৌদি ‘ক্রাউন প্রিন্স’ মোহাম্মদ বিন সালমান ‘পুরোপুরি জ্ঞাত’ থাকতে পারেন বলেও বিবৃতিতে স্বীকার করেছেন তিনি। এরপরও তিনি বলেছেন, ‘যাই ঘটুক, আমাদের সম্পকর্ সৌদি আরবের সঙ্গে।’

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে যাওয়ার পর খুন হন খাশোগি। এই হত্যাকাÐের জন্য ‘অসৎ গোয়েন্দাদের’ দায়ী করেছে সৌদি আরব। তবে ক্রাউন প্রিন্স এই খুনের পরিকল্পনার বিষয়ে কিছু জানতেন না বলে দাবি করেছে। কিন্তু ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানই ওই খুনের আদেশটি দিয়েছিলেনÑ মাকির্ন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র এমনটি বিশ্বাস বলে জানিয়েছে মাকির্ন গণমাধ্যম। এরপর বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেছেন, ‘এই শোচনীয় ঘটনার বিষয়ে ক্রাউন প্রিন্স হয়তো সবই জানতেন, হয়তো তিনি করেছেন অথবা হয়তো তিনি করেননি!’ মঙ্গলবারই পরে তিনি বলেছেন, ‘সিআইএ ওই হত্যাকাÐের বিষয় শতভাগ নিশ্চিত হতে পারেনি।’ ইরানের বিরুদ্ধে সৌদি আরব যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র, বিবৃতিতে এ কথা বলার আগে ট্রাম্প বলেন, ‘এই বিশ্ব অত্যন্ত বিপজ্জনক একটি জায়গা!’ সৌদি আরব ‘র‌্যাডিক্যাল ইসলামিক টেরোরিজমের বিরুদ্ধে লড়াই পরিচালনা করতে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার’ খরচ করেছে, অপরদিকে ইরান ‘মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে বহু মাকির্ন ও অন্যান্য নিরপরাধ লোককে হত্যা করেছে।’ বিবৃতিতে সৌদি বিনিয়োগ প্রতিশ্রæতি ও অস্ত্র ক্রয়চুক্তির বিষয়ে জোর দিয়েছেন ট্রাম্প। বলেছেন, ‘আমরা যদি বোকার মতো এসব চুক্তি বাতিল করি, তবে এর সুবিধাভোগী হবে রাশিয়া ও চীন।’

সালমানের ভ‚মিকা তদন্তের আহŸান সিনেটরদের

ট্রাম্প যখন এসব কথা বলছেন, তখন জামাল খাশোগি খুনের ঘটনায় সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স সালমানের ভ‚মিকা তদন্ত করে দেখার আহŸান জানিয়েছেন মাকির্ন সিনেটররা। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে লেখা এক চিঠিতে মঙ্গলবার তারা খাশোগি খুনের ঘটনায় দ্বিতীয় আরেকটি তদন্তের অনুরোধ জানান। কংগ্রেসের বৈদেশির সম্পকর্-বিষয়ক কমিটির সদস্য ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান সিনেটররা এই চিঠিটি লিখেছেন। ‘গেøাবাল ম্যাগনিৎস্কি হিউম্যান রাইটস অ্যাকাউন্টেবলিটি অ্যাক্টের’ আওতায় চিঠিটি লেখায় মাকির্ন প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাতে ১২০ দিন সময় পাচ্ছেন।

খাশোগি খুনের মাকির্ন প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের পরপরই সিনেটের বৈদেশিক সম্পকর্-বিষয়ক কমিটির পক্ষে রিপাবলিকান সিনেটর বব কোকার্র ও ডেমোক্রেট সিনেটর বব মেনডেজ একটি বিবৃতি দেন। তারা সুনিদির্ষ্টভাবে সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের বিষয়ে দ্বিতীয় আরেকটি তদন্তে মনোযোগী হতে ট্রাম্পের প্রতি আহŸান জানান। ‘বিদেশি কোনো ব্যক্তি বিচারবহিভ‚র্ত হত্যাকাÐ, নিযার্তন ও মানবাধিকারের ভয়াবহ লঙ্ঘনে দায়ী কিনা’ তদন্তে তাও খতিয়ে দেখার কথা বলেছেন সিনেটররা। রিপাবলিকান পাটির্র আরেক সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম বলেছেন, কংগ্রেসে সৌদি আরব ও রাজপরিবারের দায়িত্বশীল সদস্যদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার ক্ষেত্রে রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেট উভয় দলের সদস্যদেরই শক্ত সমথর্ন পাওয়া যাবে।

হত্যাকাÐে সৌদি যোগ দেখেও দেখছে না যুক্তরাষ্ট্র : তুরস্ক

খাশোগি হত্যাকাÐে সৌদি যুবরাজের ভ‚মিকা যুক্তরাষ্ট্র দেখেও না দেখার ভান করছে বলে অভিযোগ করেছে তুরস্ক। এই হত্যাকাÐ নিয়ে আন্তজাির্তক মহলের নিন্দার পরও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের সঙ্গে মিত্রতার পক্ষে জোরালো অবস্থান নিয়েছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানের দল একে পাটির্র উপপ্রধান নুমান কুরতুলমুস ট্রাম্পের মঙ্গলবারের বিবৃতিকে ‘ভঁাড়ামি’ হিসেবে বণর্না করেছেন। বুধবার তিনি বলেন, ‘সিআইএর মতো গোয়েন্দা সংস্থা, যারা যুক্তরাষ্ট্রে সৌদি কনস্যুলেটের বাগানের চারপাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া বিড়ালের লোমের রঙ পযর্ন্ত বলে দিতে পারে, তারা খাশোগি খুনের নিদের্শদাতার নাম জানে না, এটা অসম্ভব। যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ বা আন্তজাির্তক বিশ্ব কেউই এ কথা বিশ্বাস করবে না।’

Development by: visionbd24.com