‘স্বামীকে হত্যার পর লাশ বস্তায় ভরে ফেলে যান স্ত্রী’

শনিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০১৯ | ১২:১২ অপরাহ্ণ | 447 বার

স্বামী রফিকুল ইসলাম শেখ ও স্ত্রী জেবুন নাহার গার্মেন্টে চাকরি করতেন। প্রতিমাসের স্বামীর কাছে বেতনের হিসাব চাইলেই তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা থেকে শুরু করে বিষয়টি হাতাহাতিতে গড়াতো। এ থেকে ক্ষোভেরবোশে রাতে ঘুমের মধ্যে প্রথমে স্বামীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন, এর পরে মাথা ও দুই হাতের কুনুই থেকে বিচ্ছিন্ন রাবিকুল ইসলামের লাশ বস্তায় রেখে কাজে যান জেবুন নাহার। শনিবার দুপুরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুর গাজীপুর নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান।

সবুর জানান, শুক্ররাত রাতে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোমহর্ষক ওই হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দেন জেবুন নাহার। নিহত রাবিকুল ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার উলামাকান্দা গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে। তিনি গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ী এলাকার আতিকুল ইসলাম ভূট্টুর বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় হাউ আর ইউ পোশাক কারখানায় স্টোর লোডার হিসেবে চাকরি করতেন। স্বামীর পাশাপাশি চাকরি করতেন স্ত্রী জেবুন নাহারও। স্বামী বিভিন্ন সময় মারধরও করেন বলে পুলিশের কাছে দাবি করেছেন জেবুন নাহার।

Development by: visionbd24.com